এফিলিয়েট মার্কেটিং গাইড

আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পূর্ণ গাইডলাইন- স্টেপ ০ ( কিভাবে শুরু করবেন )

অনেকদিন থেকেই ভাবছিলাম একটা সম্পূর্ণ গাইড লিখবো কিভাবে আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে হয় এই ব্যাপারে। আমি যে খুব বড় ধরনের মার্কেটার তা একেবারেই না। আমি কোনো এক্সপার্টও না। আমিও আপনাদের মতোই এফিলিয়েট মার্কেটিং করছি কয়েক বছর ধরে। অনেক কিছু শিখেছি, এখনো প্রতিটা দিন শিখছি। অনেকেই আমাকে ফোন দিয়ে, মেসেজ করে জানতে চান কিভাবে শুরু করতে হবে এই এফিলিয়েট মার্কেটিং। তাই আমি ভাবলাম সবাইকে আলাদা আলাদা না বলে একবারে একটা গাইড লিখি, এতে হয়তোবা অনেকেরই উপকার হবে।

আমি আমার এই গাইড একদম স্টেপ ০ থেকে শুরু করছি। মানে শুরু করার আগে কি কি বিষয় জানা দরকার একদম সেখান থেকেই শুরু করছি। আশা করি সম্পূর্ণ গাইডটা পড়ার পর আপনার আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এর উপর একটা ভালো ধারনা হয়ে যাবে।

শুরু করার আগে কিছু কথা

আমাজ এফিলিয়েট মার্কেটিং করার অনেক অনেক পদ্ধতি আছে। একেকজন একেক পদ্ধতি ফলো করেন, যার যেটা ভালো লাগে। কারোরটাই ভুল না। আমারটাই ঠিক, বাকি সবারটা ভুল এমন ভাবার কোনো কারণ নেই। আমি যেই পদ্ধতি ফলো করি সেটাই এই গাইডে বলবো। আমি একটু কন্ট্রভার্সিয়াল ভাবে কাজ করি। ম্যাক্সিমাম মার্কেটার যেই জিনিসটা করতে বলেন সেটা আমি করিনা। কেন করিনা সে ব্যাপারে বিস্তারিত বলবো। আমি মূলত Income School এই ইউটিউব চ্যানেলটা ফলো করেই ভালো রেজাল্ট পাওয়া শুরু করেছি আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এ। তো আমি তাদের দেখানো পদ্ধতিগুলোই ফলো করি, সেগুলোই এই আর্টিকেলে নিজের মতো করে বলবো।

আপনারা কেউ যদি আরো ভালোমতো এফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে জানতে চান, তাহলে আমি সাজেস্ট করবো Income School চ্যানেলের ভিডিও গুলো দেখতে।

আরেকটা কথা আমি বারবার বলছি ভাই, আমি কোনো এক্সপার্ট না। আমি কোনো গুরুটাইপ কিছু না। আপনার আমার মধ্যে তেমন কোনো পার্থক্য নাই, শুধু আমি হয়তোবা ২ দিন আগে এই লাইনে কাজ শুরু করসি। প্লিজ কেউ ভেবে বসবেন না আমি এই গাইড দিয়ে পরে কোনো ব্যবসা করবো, কোর্স বানাবো ইত্যাদি। আমার সেগুলা করার ইচ্ছা বা যোগ্যতা কিছুই নেই।

তবে হ্যা, পুরো গাইডের কিছু কিছু জায়গায় আমি কিছু এফিলিয়েট লিংক ব্যবহার করবো। এই লিংক ব্যবহার করে কিছু কিনলে আমি একটা কমিশন পাবো। আপনি যদি মনে করেন আমার গাইডটা আপনার কাজে লাগছে, তাহলে আমি খুব খুশি হবো আমার এফিলিয়েট লিংক ব্যবহার করলে।  আর যদি না করেন, কোনো সমস্যা নাই! গাইডটা পড়ে যদি কিছু জানাতে পারি আপনাদের সেটাই হবে আমার সার্থকতা।

সাইট বানাতে কত টাকা লাগবে?

এই জিনিসটা আসলে এভাবে বলা যায় না। তবে একটা ব্যাসিক ধারনা দিতে পারি। প্রথমেই আপনাকে ডোমেইন আর হোস্টিং কেনা লাগবে। যদি আপনি ইন্টারন্যাশনাল কোনো মার্কেটপ্লেস থেকে কিনেন, তবে ডোমেইন এর জন্য মোটামোটি ১০ ডলার লাগবে, আর হোস্টিং এর জন্য আনুমানিক ১৫-৫০ ডলার (ডিপেন্ড করে আপনি কি ধরনের প্যাকেজ নিচ্ছেন তার উপর)।

আর বাংলাদেশি কোনো হোস্টিং প্রভাইডারের কাছ থেকে নিলে, ডোমেইন এর জন্য খরচ পরতে পারে ১০০০ টাকার মতো আর হোস্টিং এর জন্য আনুমানিক ২০০০ টাকা। এই দামগুলো হেরফের হবে আপনি কোন প্যাকেজ নিচ্ছেন, কোন কোম্পানি থেকে নিচ্ছেন এসবের উপর। আমি আপনাকে শুধু একটা ধারনা দিলাম।

যদি ইন্টারন্যাশনাল কোনো মার্কেটপ্লেস থেকে ডোমেইন হোস্টিং নিতে চান, আমি রিকমেন্ড করবো NameCheap (Affiliate Link) কে। তাদের সার্ভিস এখন পর্যন্ত আমার বেশ ভালো লেগেছে। আর বাংলাদেশি কোনো কোম্পানি থেকে নিতে চাইলে আমি বলবো ExonHost (affiliate link) এর কথা। যদিও আমি তাদের কোনো সার্ভিস নেইনি, তবে ম্যাক্সিমাম মানুষই আমাকে বলেছে তাদের সার্ভিস খুবই রিলায়েবল।

ডোমেইন হোস্টিং এর পর আসে থিম এর ব্যাপারটা। থিম ফ্রী আছে, প্রিমিয়ামও আছে। এমন কোনো নিয়ম নাই যে আপনি ফ্রী থিম ব্যবহার করতে পারবেন না। আমার প্রথম দিকের বেশ কয়েকটা সাইট ফ্রী থিমেই করা হয়েছিল। আমার পছন্দের কিছু ফ্রী থিম হচ্ছে Publisho, Iconic One. আর প্রিমিয়াম থিমের ভেতর আমি ব্যবহার করি X Theme. এটার দাম প্রায় ৬০ ডলার এর মতো। আপনি থিম কিনবেন না ফ্রী থিম ব্যবহার করবেন সেটা সম্পূর্ণ আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। বাজেট টাইট হলে আমি বলবো ফ্রী থিম দিয়েই কাজ শুরু করতে।

সবচেয়ে বেশি যে জায়গায় খরচ হবে সেটা হলো কন্টেন্ট রাইটিং এর পেছনে। আপনি নিজে যদি লিখতে পারেন তাহলে তো খুবই ভালো। আপনার এটার পেছনে কোনো ইনভেস্ট করা লাগছে না। কিন্তু নিজে লিখতে না পারলে কিছু করার নেই। কন্টেন্ট কেনা লাগবে আপনার।

কন্টেন্ট অনেকভাবেই কিনতে পারেন আপনি। অনেকে বাইরের সাইটগুলো থেকে ন্যাটিভ রাইটারদের দিয়ে কন্টেন্ট লেখায় (textbroker.com, iWriter.com ইত্যাদি) আমি আগেই বলে রাখছি এসব সাইট থেকে আর্টিকেল নিলে একটু ভারী বাজেট থাকা লাগবে।

এছাড়াও আপনি চাইলে ফ্রীল্যান্সার রাইটার দিয়ে আর্টিকেল লেখাতে পারেন। এতে খরচ কম পড়বে। কিন্তু কোয়ালিটি সম্পর্কে কোনো নিশ্চয়তা দেওয়া যাবে না।

এই ফাকে একটু নিজের সার্ভিসের মার্কেটিং করে ফেলি। আমার এজেন্সি রাইটার্স মোশন আর্টিকেল লেখার সার্ভিস দিয়ে থাকে। আমার একদল নিজস্ব রাইটার আছে যাদের আমি নিজে ট্রেইন করিয়েছি আমি যেভাবে আমার সাইটের জন্য আর্টিকেল লিখি সেভাবে লিখতে। আশা করি কোয়ালিটি নিয়ে নিরাশ হবেননা, আর তা ছাড়াও প্রত্যেকটা আর্টিকেল আমি CopyScape, Grammarly দিয়ে চেক করে দিই। তাই Plagiarism, Grammatical error এসব নিয়েও ভাবতে হবেনা আপনাকে। আমার এখানে আর্টিকেলের খরচ সম্পর্কে একটু বলি যাতে আপনি ধারনা পান। প্রতি ১০০০ ওয়ার্ডের আর্টিকেলের জন্য ১০০০টাকা খরচ পরবে। আর আপনি যদি একবারে ৫০০০ ওয়ার্ড বা তার বেশি অর্ডার করেন, তবে আমি একটা ১০% ডিসকাউন্ট দিবো।  বিস্তারিত জানতে আমাকে কল করতে পারেনঃ ০১৯৬৯-১০৪১৫৭

তো মোটামোটি স্টেপ ০ এইখানেই শেষ। পরবর্তী স্টেপে যাবার জন্য নিচের লিংকে ক্লিক করলেই হবেঃ

Step 1 এ যান >>