এফিলিয়েট মার্কেটিং গাইড

আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পূর্ণ গাইডলাইন- স্টেপ ৩ (সাইটের ডিজাইন)

এই স্টেপে সাইটের ডিজাইন নিয়ে আমরা কাজ করবো। সাইটের ডিজাইন নিয়ে প্রথমেই যে জিনিসটা বলা দরকার, সেটা হলো সাইটের ডিজাইন অবশ্যই যতটুক সম্ভব সিম্পল রাখবেন। খুব বেশি জাক-জমক ডিজাইনের একেবারেই কোনো দরকার নেই।

সাইটের ডিজাইন যত সিম্পল, পরিষ্কার রাখা যায় ততো ভালো। ডিজাইন করার সময় নিচের ব্যাপারগুলোর দিকে খেয়াল রাখা লাগবেঃ

  • সাইটের Home Page এ ডিসপ্লে কিরকম হবে সেতা দু’ভাবে সেট করা যায়ঃ Latest Posts এবং Static Page. Latest Post সিলেক্ট করলে হোমপেজে আপনার পোস্টগুলো একটার পর একটা অটোমেটিক আসতে থাকবে। আর Static Page সিলেক্ট করলে হোমপেজে যেকোনো একটা পেজ সবসময় শো করবে। অন্য কিছু না। সেক্ষেত্রে আপনাকে আলাদা করে একটা ব্লগ পেজ বানাতে হবে যেখানে আপনার ব্লগ পোস্টগুলো একটার পর একটা শো করবে। এই দু’টা সেটিং আপনি ঠিক করতে পারবেন ওয়ার্ডপ্রেসের ড্যাশবোর্ডে ঢুকে Settings>Reading এ গিয়ে। চলুন দু’টা সেটিং এ সাইট কেমন লাগে তার বাস্তব উদাহারণ দেখিঃ এই পেজটা Latest Posts সেটিং সিলেক্ট করে বানানো হয়েছে। এটা আমার নিজের সাইট। আর এই রাইটার্স মোশনের সাইটের হোমপেজের জন্য Static Page অপশন সিলেক্ট করা হয়েছে। আপনি কোনটা সিলেক্ট করবেন সেটা আপনার সাইটের ধরনের উপর ডিপেন্ড করবে। তবে একটা এফিলিয়েট নিশ সাইটের জন্য আমি Latest Post সিলেক্ট করতেই পছন্দ করি।
  • খেয়াল রাখবেন আপনার সাইট যেন খুব সহজেই ন্যাভিগেট করা যায়, মানে এক পেজ থেকে আরেক পেজে যাতে সহেজেই যাওয়া যায়। সাইটের ন্যাভিগেশন কঠিন হলে সেটা SEO তেও খারাপ প্রভাব ফেলে। আমি বলবো খুব জাক-জমক কোনো থিম ইন্সটল না করে সাধারন, সুন্দর, পরিষ্কার কোন একটা থিম ইন্সটল করতে। তাহলে অটোমেটিক আপনার সাইটের ন্যাভিগেশন সহজ হবে।
  • সাইটে অবশ্যই About Us, Contact Us, Privacy Policy এই পেজগুলো রাখবেন। এই পেজগুলো সাধারনত আপনার ভিজিটররা এসে পড়বেনা। এগুলো দরকার সার্চ ইঞ্জিনের জন্য। গুগুল সাইটে এসব পেজ দেখতে পছন্দ করে।
  • সাইটে একটা রিসোর্স পেজ রাখলে খুব ভালো হয়। রিসোর্স পেজ বলতে আমি বোঝাচ্ছি এমন একটা পেজ, যেখানে আপনার নিশের আন্ডারে যত টাইপের প্রোডাক্ট আছে, সবগুলো টাইপ থেকে একটা একটা করে প্রোডাক্ট নিয়ে সেগুলোর এফিলিয়েট লিংক দিয়ে লিস্ট করে রাখবেন। একটা উদাহারণ দিলে ব্যাপারটা পরিষ্কার হবে আরো। ধরুন আমার সাইট হলো Night Photography নিয়ে। তাহলে আমি আমার রিসোর্স পেজে এই জিনিসগুলো রাখবো- Night Photography এর জন্য কোন ক্যামেরাটা আমি ব্যবহার করি সেটা নিয়ে কিছু কথাবার্তা আর সেটার এফিলিয়েট লিংক, আমি কোন ট্রাইপড ব্যবহার করি, কি লেন্স ব্যবহার করি, কি ধরনের ক্যামেরা ব্যাগ ব্যবহার করি, কি কি লেন্স ফিল্টার ব্যবহার করি সেসবের লিস্ট আর সাথে এফিলিয়েট লিঙ্ক। মানে রিসোর্স পেজে আমি যেসব প্রোডাক্ট ব্যবহার করি সেগুলোর নাম আর এফিলিয়েট লিঙ্ক থাকবে। এতে করে কোনো একজন ভিজিটর রিসোর্স পেজে ঢুকেই বুঝতে পারব কোন ক্যামেরাটা আমার প্রিয়। এতে করে সে ওখান থেকেই আমার এফিলিয়েট লিংকে ক্লিক করে ক্যামেরাটা কিনতে পারবে। অনেকেই রিসোর্স পেজকে Gears নামেও লিখে থাকেন। এখানে ক্লিক করলে একটা প্র্যাকটিকেল রিসোর্স/ গিয়ার পেজ দেখতে পারবেন
  • সাইটের সাইডবার যদ্দুর পরিষ্কার রাখা যায় রাখবেন। অযথা অতিরিক্ত Widget ব্যবহার করে সাইট ঘিঞ্জি বানানোর কোনো দরকার নেই। আমি নতুন অবস্থায় একটা সাইটের সাইডবারে শুধু সার্চ বক্স, রিসেন্ট পোস্ট আর এফিলিয়েট ডিসক্লোসার রাখি।
  • চলুন এফিলিয়েট ডিসক্লোসার নিয়ে কথা বলি। আমাজনের একটা এফিলিয়েট ডিসক্লোসার আছে, এটা আপনার সাইটের এমন এক জায়গায় রাখা লাগবে যেনো প্রত্যেক পেজ থেকে ডিসক্লোসারটা দেখা যায়। এটা আমাজন এফিলিয়েটের গাইডলাইনের ভেতর পরে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে আমার সাইটের সাইডবারে ডিসক্লোসারটা রাখতে পছন্দ করি। আপনার সুবিধার জন্য আমি ডিসক্লোসারটা নিচে দিয়ে দিচ্ছি, আপনি জাস্ট আপনার/আপনার সাইটের নাম বসিয়ে কপি-পেস্ট করে দিবেনঃ

“This site is owned and operated by “আপনার নাম”. “আপনার নাম” is a participant in the Amazon Services LLC Associates Program, an affiliate advertising program designed to provide a means for sites to earn advertising fees by advertising and linking to Amazon.com”

আমি আমার সাইটের আর্টিকেলগুলোকে মূলত তিনটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করিঃ

Informative: সব ইনফর্মেটিভ আর্টিকেল (যেমন How To) এই ক্যাটাগরির ভেতর থাকে।

Product Review: এই ক্যাটাগরির ভেতর থাকে সব সিঙ্গেল প্রোডাক্ট রিভিউ আর্টিকেল।

Buyers Guide: এই ক্যাটাগরির ভেতর থাকে সব বায়ারস গাইড (যেমন “Top 10…….” “10 Best …….”)।

প্রত্যেকটা ক্যাটাগরিকে আমি আলাদা আলাদা ভাবে মেন্যুতে রাখি, যাতে ভিজিটর চাইলে যেকোনো এক ক্যাটাগরির সব আর্টিকেল একসাথে পড়তে পারে। আমার এই সাইটে এভাবে করেছি, চাইলে দেখে আসতে পারেন।

তো এই ছিল সাইট ডিজাইন নিয়ে আমার কথাবার্তা। চলুন পরের স্টেপে যাওয়া যাক।

পরবর্তী স্টেপ ৪ এ যান >>

<< আগের স্টেপ ২ এ যান