common wordpress mistakes

৫ টা কমন ওয়ার্ডপ্রেস ভুল যা নতুনরা করে থাকে

আমরা কমবেশি প্রায় সবাই সাইট বানানোর জন্য ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে থাকি। আমি এই পোস্টে ৫টা কমন ওয়ার্ডপ্রেস ভুলের কথা বলবো যেগুলা নতুনরা সাধারনত করে থাকে। চলুন শুরু করা যাকঃ

১। পার্মালিঙ্ক সেটআপ না করাঃ

পার্মালিঙ্ক হলো একটা লিঙ্ক ফর্ম্যাট যেটা ঠিক করে আপনার সাইটের প্রতিটা লিঙ্ক কেমন হবে সেটা। ওয়ার্ডপ্রেসে লিঙ্কের অনেক ধরনের ফরম্যাট আছে যেমন

  • https://site.com/?p=123
  • https://site.com/2019/1/9/sample-post
  • https://site.com/post ইত্যাদি

বেশিরভাগ মার্কেটাররাই বলেন ৩ নম্বর ফর্ম্যাটটা ব্যবহার করতে মানে এইটাঃ https://site.com/post । এই ফর্ম্যাটটাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এস ই ও র জন্য সবচেয়ে ভালো। পার্মালিঙ্ক সেটআপ করতে প্রথমে আপনাকে আপনার সাইটের ওয়ার্ডপ্রেস ডেশবোর্ডে ঢুকে Settings>Permalinks এ যেতে হবে। এরপর “Post Name” এই ফরম্যাটটা সিলেক্ট করতে হবে।

২। সাইট ব্যাকআপ না করা

এটা অনেক মারাত্মক একটা ভুল। আপনি যতই এক্সপার্ট হোন না কেন, একটা টাইমে সাইট চালানোর সময় কোনো ভুল হতেই পারে। দেখা গেলো কোনো একটা বাজে প্লাগইন এর কারনে আপনার সাইট ক্র্যাশ করেছে। নতুনরা এই ধরনের সমস্যায় অনেক বেশি পড়ে থাকেন। তাই এমন ক্ষেত্রে, সাইটের ব্যাকআপ না থাকলে আপনার এতো দিনের কষ্ট সব মাটিতে মিশে যেতে পারে। আমি সবসময় UpdraftPlus এই প্লাগইনটা ব্যবহার করি আমার সাইটের ব্যাকআপ রাখার জন্য।

৩। ইমেজ রিসাইজ না করা

[sociallocker]

ইমেজ রিসাইজ করে আপলোড না করলে আপনার সাইট লোড হতে অনেক অনেক সময় লাগবে। সাইট স্পিড কমে যাবার অন্যতম কারণ হলো এটা। সাধারনত একটা HD কোয়ালিটির ছবির সাইজ থাকে ১২৮০ x ৭২০ (১-২ মেগাবাইট)। এটা কোনো প্রকার রিসাইজ না করে আপলোড করলে স্পিডের বারোটা বেজে যাবে। আমি যেকোনো ছবি আপলোড করার আগে প্রথমে Paint এ সেটাকে নিয়ে রিসাইজ করে ফেলি। এছাড়াও আমি Smush এই প্লাগইনটা ব্যবহার করি। এটা কোনো ছবি আপলোড করার সাথে সাথেই সেটাকে কম্প্রেস করে ফেলে। এতে অনেক জায়গা বেচে যায়। আপনার সাইট স্পিডও ঠিক থাকে।

৪। অতিরিক্ত প্লাগইন ব্যবহার করা

বাজে প্লাগইন একটা সাইটের সবচেয়ে বেশি সমস্যা করতে পারে। আপনি যত বেশি প্লাগইন ব্যবহার করবেন, তত বেশি সমস্যায় পড়তে পারে আপনার সাইট। আমি নিজেও এই ভুল শুরুর দিকে অনেক করেছি। পরে শিক্ষাও হয়েছে অনেক। শুধু মাত্র যে কয়টা প্লাগইন ব্যবহার না করলেই না সেগুলা ব্যবহার করবেন। আর কোনো একটা প্লাগইন ইন্সটল করার আগে অবশ্যই দেখে নিবেন সেটার রেটিং কেমন, কোনো রেপুটেবল ডেভেলপার সেটা বানিয়েছে কিনা, সেটার রিভিউ কেমন ইত্যাদি।

৫। স্ট্রং পাসওয়ার্ড ব্যবহার না করা

শুরুর দিকে না হলেও, আপনার সাইট যখন একটু established হবে তখন দিনে প্রায় শ’খানেক হ্যাকিং এটেম্পট আসবে আপনার সাইটে। আমার সাইটে এখন দিনে প্রায় ২০০টা পাসওয়ার্ড ক্র্যাক করার এটেম্পট্‌ আসে। তাই একটা স্ট্রং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। খেয়াল রাখবেন পাসওয়ার্ডটা যেন কমপক্ষে ১২ ক্যারেক্টার লম্বা হয়, স্পেশাল ক্যারেক্টার, নাম্বার ইত্যাদি যাতে থাকে। এছাড়াও আমি iTheme Security এই প্লাগইনটা ব্যবহার করি সাইট হ্যাকিং থেকে নিরাপদ রাখার জন্য।

[/sociallocker]